হোয়াইটওয়াশ লজ্জা: তামিমের আত্মসমর্পন, সৌম্যের আফসোস

শ্রীলঙ্কায় এ কোন বাংলাদেশ খেলেছে। এটা বিসিবি একাদশ নয় তো? কলম্বোর প্রেমাদাসায় টাইগার টিমের এমন বাজে পারফর্ম দেখে যে কেউই চোখ কচলাতে কচলাতে কথাগুলো বলতে পারেন। বলারও কথা। কারণ তিন ম্যাচ সিরিজে একটি ম্যাচেও নিজেদের দিকে ফল ঘোরাতে পারেনি বাংলাদেশ। জেতা তো দূরের কথা। তারা নূন্যতম প্রতিরোধও গড়তে ব্যর্থ। যে কারণে কপাল পুঁড়েছে বাংলাদেশের।

তিন ম্যাচ সিরিজে প্রথমটিতে রান ব্যবধানে হার। দ্বিতীয়তে উইকেট এবং তৃতীয়টি সেই প্রথম ম্যাচের পুনরাবৃত্তি। আর তিন ম্যাচে স্বয়ং ক্যাপ্টেন তামিম তুলেছেন ২১ রান। প্রথম ম্যাচে ০, দ্বিতীয় ম্যাচে ১৯ এবং তৃতীয় ম্যাচে ২। দলের গুরুত্বপূর্ণ প্লেয়ার রিয়াদেরও একই দৃশ্য। দুই অংকের ঘরে একবারও পৌঁছাতে পারেননি তিনি। সৌম্য লড়তে চেয়েও ব্যর্থ। মিথুনও কপাল পোঁড়া। প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো খেলা এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কোনভাবেই নিজেকে মেলে ধরতে পারেনি। দলের পক্ষে একমাত্র মুশফিক দেখার মতো পারফর্ম করেছেন। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে তো সেঞ্চুরির কাছে গিয়ে ফিরেছেন তিনি। তাও দলের কথা ভেবে।

দলের এমন যাচ্ছে তাই পারফর্মের কারণে বেজায় মন খারাপ তামিমের। সৌম্যও সুধালেন দুঃখের বানী। ম্যাচ শেষে ক্যাপ্টেন তামিম বলেছেন, তিনি তার ক্যারিয়ারে ১২ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলে আসছেন। কিন্তু কখনো এমন বিপাকে পড়েননি।

তার বক্তব্য ছিল, প্রথম দিন থেকে আমি বলছি, গুরুত্বপূর্ণ হবে দায়িত্ব নেওয়া। আমি ১২ বছর ধরে খেলছি, অন্যরাও দীর্ঘদিন ধরে খেলছে। হতাশার ব্যাপার হলো, দলের প্রয়োজনের সময় আমরা কেউই দায়িত্ব নিতে পারছি না। এসব নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে এবং ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়াতে হবে।

তামিম আরো বলেন, বিশ্বকাপ থেকে শুরু করে এই সিরিজে, আমি নিজেকেই হতাশ করেছি। এমন নয় যে আমি চেষ্টা করিনি। সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি, হয়তো আমি যথেষ্ট ভালো ছিলাম না। আমাকে ফিরে গিয়ে গভীরভাবে দেখতে হবে, দুর্বলতা নিয়ে কাজ করতে হবে এবং শক্তভাবে ফিরে আসতে হবে।

এদিকে সৌম্য বলছেন, দায়িত্বহীনতার ফসল এটি। তিনি এই হারকে অজুহাত হিসাবে টানতে চাননা। বলেন, ‘আমরা সবাই যদি দায়িত্ব নিয়ে খেলতাম, ভালো করার চেষ্টা যদি বেশি থাকত, তাহলে এমন হতো না। সবাই ঠিকভাবে খেলতে পারিনি, হয়তো কোনো কারণে ভুল হয়েছে। ভুলগুলো যদি শোধরাতে পারতাম তাহলে এমনটা হতো না।’

সৌম্য আরো বলেন, যে কন্ডিশনেই খেলি না কেন, আমরা যেহেতু খেলোয়াড়, আমাদের উচিত ভালো খেলা। আর ভালো খেলাই তো আমাদের মূল দায়িত্ব।

Facebook Comments
পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন: