1. mdmohaiminul77@gmail.com : md mohaiminul : md mohaiminul
  2. bd2daynews20@gmail.com : admin :
  3. kamranahmed141@gmail.com : kamran ahmed : kamran ahmed
সর্বশেষ সংবাদ :
এ্যাডঃ সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ কে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় দৌলতপুর উপজেলা বাসী সকল বাধা উপেক্ষা করে আওয়ামী লীগের নের্তৃত্বে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ___ প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম মনি দৌলতপুরে ইউপি সদস্যদের অভিযোগে ক্ষুব্ধ চেয়ারম্যান গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৩৮৬২ জনের, মৃত্যু ৫৩ দৌলতপুরে ড. মোহাম্মদ ফজলুল হক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বড়াইগ্রামে মাদকসেবীর আক্রমণে পিতা-পুত্র আহত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২৮৫৬, মৃত্যু ৪৪ ক্রিসেন্ট নার্সিং ইনস্টিটিউট থেকে বহিস্কার হওয়া রাজুর বিরুদ্ধে ৭৩ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ কুষ্টিয়ায় মারপিট ও গাড়িতে আগুন যত টাকা বাড়ল সিগারেটের দাম

কমে গেল চাল, চিনি, পেঁয়াজ ও রসুনের দাম

  • আপডেট টাইমঃ বৃহস্পতিবার, ১১ জুন, ২০২০
  • ১৩১ বার পঠিত
কমে গেল চাল, চিনি, পেঁয়াজ ও রসুনের দাম
কমে গেল চাল, চিনি, পেঁয়াজ ও রসুনের দাম

‘অর্থনৈতিক উত্তরণ ও ভবিষ্যৎ পথপরিক্রমা’ শিরোনামে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।এটি ক্ষমতাসীন সরকারের চলতি মেয়াদের দ্বিতীয় এবং দেশের ৪৯তম বাজেট। অর্থমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো আ হ ম মুস্তফা কামালের উত্থাপিত এই বাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য চাল, আটা, আলু, পেঁয়াজ, রসুনের স্থানীয় পর্যায়ে সরবরাহের ক্ষেত্রে উৎসে আয়কর কমানো হয়েছে। পাশাপাশি আমদানি করা চিনি ও রসুনের অগ্রিম আয়কর কমানো হয়েছে। ফলে এসব নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমবে।

প্রস্তাবিত বাজেট তুলে ধরতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে ব্যবসায়ীদের হাতে চলতি পুঁজির ঘাটতি লাঘবকল্পে এবং উৎসে করহার যৌক্তিকীকরণের লক্ষ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসহ কতিপয় পণ্যে আমি উৎসে আয়কর কর্তনের হার কমানোর প্রস্তাব করছি। বর্তমানে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য যেমন-চাল, আটা, আলু, পেঁয়াজ, রসুন ইত্যাদি স্থানীয় পর্যায়ে সরবরাহের ক্ষেত্রে উৎসে আয়কর কর্তনের সর্বোচ্চ হার ৫ শতাংশ, যা ভিত্তিমূল্য নির্বিশেষে ২ শতাংশে নির্ধারণের প্রস্তাব করছি।’

অর্থমন্ত্রী বলেন,‘বর্তমানে স্থানীয়ভাবে সংগৃহীত এম এস স্কাপ সরবরাহের ওপর উৎসে আয়কর কর্তনের সর্বোচ্চ হার ৫ শতাংশ। স্থানীয়ভাবে সংগৃহীত এম এস স্কাপ সরবরাহকারী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের আর্থিক সক্ষমতার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এবং লৌহ উৎপাদন শিল্পের বিকাশের লক্ষ্যে আমি স্থানীয়ভাবে সংগৃহীত এম এস স্কাপের সরবরাহের উপর উৎসে আয়কর কর্তনের হার ভিত্তিমূল্য নির্বিশেষে দশমিক ৫ শতাংশ নির্ধারণের প্রস্তাব করছি।বর্তমানে রসুন ও চিনি আমদানি পর্যায়ে ৫ শতাংশ অগ্রিম আয়কর সংগ্রহ করা হয়। আমি এই হার ৫ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ২ শতাংশে নির্ধারণের প্রস্তাব করছি।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর
BD 2 DAY NEWS এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Site Customized By NewsTech.Com